পাতা

সাধারণ তথ্য

 

  • ভূমিহীন কৃষকদম্পতি প্রথমে সংশ্লিষ্ট সহকারী কমিশনার(ভূমি) এর দপ্তর হতে সরকার কর্তৃক নির্ধারিতফরম সংগ্রহ করে দুই কপি স্বামী-স্ত্রীর যুগল ছবি সহ( সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যানকর্তৃক সত্যায়িত) সহকারী কমিশনার(ভূমি) বরাবর আবেদন করবেন। আবেদন প্রাপ্তির ৩০দিনের মধ্যে উপজেলা খাস জমি বন্দোবস্ত কমিটি প্রকৃত ভূমিহীন বাছাই কার্যক্রমসম্পাদন পূর্বক বাছাইকৃতদের নামে জমি বরাদ্দের পরিমাণ  নির্ধারণ করবেন। অতঃপরসহকারী কমিশনার (ভূমি) কর্তৃক ২১ কার্যদিবসের মধ্যে বন্দোবস্ত কেইস নথি সৃজন করেউপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট প্রেরণ করবেন এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার ২১ দিনেরমধ্যে জেলা প্রশাসক বরাবর অনুমোদনের জন্য প্রেরণ করবেন।
  • বর্তমানে ভিপিভূমি বন্দোবস্ত হয় না । তবে নবায়ন হয়। নবায়নের জন্য ০৫/- টাকার কোর্ট ফির মাধ্যমেসংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবরে আবেদন করে নবায়ন করা যায়। আবেদন প্রাপ্তিরদুই কার্যদিবসের মধ্যে তা তদন্ত পূর্বক মতামতের জন্য সংশ্লিষ্ট সহকারীকমিশনার(ভূমি) বরাবর প্রেরণ করা হয়। সহকারী কমিশনার(ভূমি) ১৫ কার্য দিবসের মধ্যেতদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন দিবেন। তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকর্তৃক নবায়নের আদেশ প্রদান করা হলে সহকারী কমিশনার(ভূমি) এর মাধ্যমে নথিটিসংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তার নিকট নবায়ন ফি আদায়ের জন্য প্রেরণ করাহয়।
  • প্রতি বাংলাবছর শেষ হওয়ার ২/৩ মাস পূর্বে পরবর্তী বছরের জন্য জলমহাল ইজারা প্রদানের নিমিত্তনির্ধারিত তারিখ সম্বলিত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়ে থাকে। নির্ধারিত তারিখেআবেদন সংগ্রহ করে এবং আবেদন দাখিলের মাধ্যমে সরকারী নীতিমালার আলোকে উপজেলা জলমহালইজারা কমিটি ইজারা প্রদান করে থাকেন।
  • প্রতি বাংলাবছর শেষ হওয়ার ২/৩ মাস পূর্বে পরবর্তী বছরের জন্য হাট বাজার ইজারা প্রদানের নিমিত্তনির্ধারিত তারিখ সম্বলিত একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়ে থাকে। নির্ধারিত তারিখেদরপত্র সংগ্রহ করে এবং দরপত্র দাখিলের মাধ্যমে সরকারী নীতিমালার আলোকে উপজেলাউন্নয়ন সমন্বয় সভা এবং উপজেলা হাট বাজার ইজারা কমিটির সিদ্ধান্ত মতে সর্বোচ্চদরদাতার নিকট ইজারা প্রদান করা  থাকে।
  • কারো আবেদনেরপ্রেক্ষিতে বা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা প্রযোজ্য মনে করলে কোন প্রকল্পে অর্থায়নেরজন্য জেলা পরিষদকে অনুরোধ করতে পারে। জেলা পরিষদের অর্থায়নে প্রকল্প বাস্তবায়নেরজন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট প্রকল্প চাওয়া হলে এলাকার চাহিদার ভিত্তিতেইউপি চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্টদের সাথে পরামর্শক্রমে প্রকল্প জেলা পরিষদে প্রেরণ করাহয়।
  • সরকার সরাসরিইউনিয়ন পরিষদে প্রাপ্ত থোক বরাদ্দ থেকে প্রকল্প বাস্তবায়নের কোন প্রকার ত্রুটি হলেতা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বা তদারকি কমিটির মাধ্যমে প্রতিকারের বিধান করাহয়।
  • টি আর পল্লীপূর্ত কর্মসূচী, কাজের বিনিময়ে খাদ্য কর্মসূচী ইত্যাদি উন্নয়নমূলক কাজ সম্পাদনেরজন্য সংশ্লিষ্ট ইউপি চেয়ারম্যান ইউনিয়ন পরিষদের সিদ্ধান্ত গ্রহণ পূর্বকরাস্তাঘাট/কালভার্ট/ব্রীজ নির্মাণ/মেরামত সংক্রান্ত উন্নয়ন প্রকল্প গ্রহণ করেসংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট প্রকল্প দাখিল করবেন। উপজেলা নির্বাহীঅফিসার উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন অফিসারের মাধ্যমে সরেজমিন তদন্ত পূর্বকঅগ্রাধিকারভিত্তিতে পিআইও এর মাধ্যমে প্রকল্প সম্পাদন করে থাকে।
  • বন্যা বাপ্রাকৃতিক দূর্যোগ হলে যে সকল ত্রাণ বরাদ্দ পাওয়া যায় তা ইউপি ভিত্তিক বিভাজন করাহয়। ত্রাণ পাওয়ার জন্য যে কোন ক্ষতিগ্রস্থ ব্যক্তি আবেদন করলে তা সংশ্লিষ্ট ইউপিচেয়ারম্যানের মাধ্যমে বিবেচনা করা হয়।
  • উপজেলাপ্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থা সম্প্রসারণসহ মাধ্যমিক শিক্ষা এবং উচ্চ শিক্ষা ব্যবস্থাউন্নয়নের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসার মূখ্য সমন্বয়কের দায়িত্ব পালন করে থাকেন।তাছাড়া শিক্ষা সংক্রান্ত যাবতীয় দরখাস্ত অভিযোগের তদন্ত করে থাকেন। উপজেলা নির্বাহীঅফিসার, উপজেলা শিক্ষা কমিটির সভাপতি এবং মাদ্রাসা,উচ্চ বিদ্যালয়, কলেজের ম্যানেজিংকমিটির সভাপতি। বিদ্যালয়গুলোর পরিচালনায় কোন অনিয়ম দৃষ্টি গোচর হলে এবং এ সংক্রান্তকারো কোন অভিযোগ পাওয়া গেলে কার্যকর ব্যাস্থা গ্রহণ করা হয়।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার স্থানীয় নির্বাচন হতে শুরু করে জাতীয় নির্বাচন পর্যন্ত সকলনির্বাচন নির্বাচন কমিশনের প্রজ্ঞাপন মতে সম্পৃক্ত থাকেন। ভোটার তালিকা প্রণয়নেউপজেলা নির্বাহী অফিসারকে ব্যবস্থা নিতে হয়। ভোটার তালিকা প্রণয়ন,ভোট কেন্দ্রস্থাপন বা ভোট গ্রহণ সংক্রান্ত কোন অভিযোগ উপজেলা নির্বাচন অফিসার বা উপজেলানির্বাহী অফিসারের নিকট করা যায়।
  • নিজ দপ্তর /নিজস্ব অধিক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসারগণ অনেক জনগুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত গ্রহণকরে কেন। উক্ত সিদ্ধান্ত কখন কখনও কারো বিরুদ্ধেও যেতে পারে। যদি কোনগুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্তে কোন কর্মকর্তা/কর্মচারী অথবা নিজ অধিক্ষেত্রের মধ্যে কারোকোন সংক্ষুব্দতার কারণ হয়ে দাড়ায় তখন তিনি ইচ্ছা করলে উর্ধতন কর্তৃপক্ষের নিকটআবেদন করতে পারবেন। তাছাড়া ইউপি চেয়ারম্যান, সদস্যগণের সম্মানী ভাতা, ইউপি সচিব, দফাদার ও মহল্লাদারদের বেতন ভাতা প্রদানের ক্ষেত্রে উপজেলা নির্বাহী অফিসারেরকার্যালয়ের সম্পৃক্ততা রয়েছে।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা সংক্রান্ত কমিটির সভাপতি।তিনি উপজেলার বিভিন্ন এলাকার অসুস্থ,দারিদ্র ও ভগ্ন  স্বাস্থ্য লোকজনের স্বাস্থ্যসেবা প্রদানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেন। স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনাসেবা সংক্রান্ত কোন অভিযোগ থাকলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট আবেদন করাযায়।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার, উপজেলা স্বাস্থ্য প্রকৌশলী এবং ইউপি চেয়ারম্যানদের সমনএয় বিভিন্নএলাকার জনগণের মধ্যে আর্সেনিকমুক্ত নলকূপ সরবরাহ করে থাকেন এবং স্বাস্থ্য সম্মতস্যানিটেশনের প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকেন। এলাকার হত দরিদ্র পরিবারেরচাহিদার ভিত্তিতে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর বরাদ্দ থেকেও স্যানিটেশন কার্যক্রমগ্রহণ করা যায়।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার উপজেলা কৃষি অফিসারের মাধ্যমে উপজেলার কৃষি উন্নয়ন সংক্রান্তযাবতীয় কার্যাদি সম্পন্ন করে থাকেন। সার, বীজ প্রদান  অথবা এ সংক্রান্ত কোন অভিযোগথাকলে সেগুলোর বিষয়ে উপজেলা  নির্বাহী অফিসার যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করে থাকেন।তাছাড়া অকাল বন্যা ও শিলা বৃষ্টিতে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদেরকে পুনর্বাসনে  সহায়ক ভূমিকাপালন করে থাকেন।
  • উপজেলা মৎস্যঅফিসের উন্নয়ন কার্যাদি তদারকি সহ মৎস্য সম্পদ উন্নয়নের লক্ষ্যে উপজেলা নির্বাহীঅফিসার গৃরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।
  • উপজেলা পশুসম্পদ অফিসের উন্নয়ন কার্যাদি তদারকিসহ পশু সম্পদ উন্নয়নের লক্ষ্যে উপজেলা নির্বাহীঅফিসার গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে থাকেন।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার উপজেলায় কর্মরত বিভিন্ন  এনজিও প্রতিনিধিদের মুখ্য সমন্বয়ক। এনজিওপ্রতিনিধিগণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের পরামর্শ / নির্দেশনা মোতাবেক বিভিন্ন এলাকায়উন্নয়নমূলক কার্যাদি সম্পন্ন করে থাকেন। এনজিওদের কার্যক্রমে কেউ সংক্ষুব্দ হলেউপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট প্রতিকারের আবেদন করা যায়।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার,উপজেলা পল্লী  উন্নয়ন কর্মকর্তার বিভিন্ন ঋণ কার্যক্রম তদারকি করেথাকেন এবং এ সংক্রান্ত উপজেলা পল্লী উন্নয়ন কর্মকর্তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ থাকলেতদন্তক্রমে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য উর্ধতন কর্তৃপক্ষ বরাবরে সুপারিশ করেথাকেন।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার উপজেলা আইন শৃংখলা কমিটির সভাপতি। তিনি সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্তকর্মকর্তার মাধ্যমে এবং ইউপি চেয়ারম্যানদের সার্বিক সহযোগিতায় উপজেলার আইন শৃংখলারউন্নয়ন করে থাকেন। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে বিভিন্নবাজারে দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণসহ অন্যান্য আইন শৃংখলার  উন্নংন সংক্রান্ত কাজ করেথাকেন।
  • উপজেলা যুবউন্নয়ন অফিসার বিভিন্ন সমিতির সদস্য এবং প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত ব্যক্তিদের মধ্যে ঋণবিতরণ করে থাকেন। ঋণ বিতরণে কোন অনিয়ম থাকলে ভূক্তভোগীগণ উপজেলা নির্বাহী অফিসারেরনিকট প্রতিকারের অভিযোগ করতে পারেন।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার উপজেলা সমাজসেবা অফিসারের যাবতীয় উন্নয়নমূলক কাজের তদারকি করেথাকেন। উপজেলা নির্বাহী অফিসার উপজেলা সমাজসেবা অফিসার কর্তৃক প্রদত্ত  বয়স্ক ভাতা, বিধবা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, প্রতিবন্দ্বী ভাতা ইত্যাদি ভাতা প্রদান কমিটির সভাপতি। এসংক্রান্ত কোন অভিযোগ থাকলে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়া হয়।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার, থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা, ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানবৃন্দেরসাহায্যে উপজেলা নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ সংক্রান্ত  বিষয়ে কাজ করেথাকেন।
  • উপজেলানির্বাহী অফিসার জেনারেল সার্টিফিকেট অফিসারের দায়িত্ব পালন করে থকেন। কোন সরকারীপাওনার ক্ষেত্রে বা ব্যাংক থেকে যে সমস্ত লোক কৃষি ঋণ সহ অন্যান্য ঋণ নিয়ে সময়মতঋণের টাকা পরিশোধ করেন না, সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলো ঋণ গ্রহীতার বিরুদ্ধে সার্টিফিকেটঅফিসারের আদালতে মামলা দায়ের করে ঋণ আদায় করে থাকেন। সার্টিফিকেট অফিসারসার্টিফিকেট মামলার মাধ্যমে ঋণ আদায়ে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকেন।

উপজেলারজনসাধারণের যে কোন ধরণের অভাব, অভিযোগ ও সমস্যা সংক্রান্ত বিষয় উপজেলা নির্বাহীঅফিসার তদারকি করে থাকেন


Share with :

Facebook Twitter